ফ্রিল্যান্সিং ক্যারিয়ার কিভাবে গড়া যায়

ফ্রিল্যান্সিং ক্যারিয়ার কিভাবে গড়া যায়?

এটা একটা গুরুত্বপূর্ণ টপিক । আপনি একটা ফিল্ডে ক্যারিয়ার দাড় করাতে চাচ্ছেন এবং আপনি যদি না জেনে থাকেন এখানে কিভাবে ক্যারিয়ার গড়া যায় তাহলে কিন্তু বিষয়টা প্রোফেশনালিজমের কাজ হলো না । এর আগে আমাদের কিছু বিষয়টা জানতে হবে ।

স্কিলঃ অর্থ দ্বারাই বুঝতে পারছেন এটি কি জিনিস । স্কিল অর্থ দক্ষতা । ফ্রিল্যান্সিং এর জন্য আপনাকে অবশ্যই কোন একটা নির্দ্রিষ্ট বিষয়ে দক্ষ হতে হবে । সেটি যেকোন কিছু হতে পারে । কি কি বিষয়ে দক্ষ হওয়া যায় এবং দক্ষ হলে সেটি কিভাবে আপনাকে অর্থ আয় করতে হেল্প করবে? এগুলোর বিস্তারিত পরবর্তীতে বিস্তারিত আলোচনা করা হবে ।

দেখুন অনলাইনে আপনি যখন কোন ওয়েবসাইটে জান অথবা কোন সোশ্যাল মিডিয়ে প্ল্যাটফর্মে যান, তখন কি দেখেন? অনেক কিছুই দেখে থাকবেন । যেমন কোন ওয়েবসাইটে গেলে আপনি ওয়েবসাইটের ধরণ অনুযায়ী কোন লেখা বা পোস্ট দেখতে পারেন, ইমেজ দেখে থাকবেন, ভিডিও দেখতে পারেন । আবার ইকমার্স ওয়েবসাইটে দেখবেন প্রোডাক্ট লিস্ট বা প্রোডাক্টের সমাহার ।

অপরদিকে সোশ্যাল মিডিয়াতে গেলেও বিভিন পেজের পোস্ট দেখতে পারেন । এখানে আপনাকে বুঝতে হবে এসমস্ত জিনিস হচ্ছে একটা ব্যবসায়ের এলিমেন্ট । মানে ইকমার্স সাইটে প্রোডাক্ট লিস্ট এগুলো মানুষ অর্ডার করলেই সাইট মালিকের ইনকাম হবে । আবার ওয়েবসাইটে ভিডিও দেখলে বা পোস্ট পড়লে এড থেকে ইনকাম হতে পারে ওয়েবসাইট মালিকের । এগুলো সবই ব্যাবসা । এখন কথা হচ্ছে এসব সাইটের বা অনলাইনের যেকোন ব্যবসারই এরকম আইটেম তৈরী করতে কোন মানুষের দরকার হয় । 

বোঝার সুবিধার্তে একদম সহজ ভাবে বলি । একটা ওয়েবসাইটের জন্য আর্টিকেল লিখতে হয় পোস্ট করতে চাইলে । তো সাইট মালিক টাকার বিনিময়ে আর্টিকেল লেখালেখি করে এমন কাউকে দিয়ে কাজ করিয়ে নিতে চায় । আপনি যদি আর্টিকেল লেখালেখি বিষয়ে ফ্রিল্যান্সার হতেন তাহলে কিন্তু আপনাকে এই ব্যাপারে স্কিলড বা দক্ষ হতে হবে । তা নাহলে তো আর্টিকেল লিখে দিতে পারবেন না এবং ক্লায়েন্টও আপনাকে টাকা দিবেন না । এই একটিমাত্র উদ্দেশ্যে ফ্রিল্যান্সার হতে হলে আপনাকে অভিজ্ঞ হতে হবে । এটাই মূল অংশ ফ্রিল্যান্সিং এর জন্য ।

এবার মনে করা যাক আপনি কোন একটি বিষয়ে স্কিল অর্জন করেছেন শিখে, সময় দিয়ে । তাহলে এবার কাজ খুঁজতে হবে । অর্থাৎ আপনি নাহয় কোন বিষয়ে দক্ষ কিন্তু আপনাকে তো ওই দক্ষতা দিয়ে কাউকে হেল্প করতে হবে কিংবা সার্ভিস দিতে হবে । কারো যদি ওই বিষয়ক সার্ভিস দরকার পড়ে আপনি তাকে কাজটি করে দিবেন, বিনিময়ে টাকা দিবে । এটাই মূল ঘটনা । তাহলে সেই কাজ গুলো কোথায় পাওয়া যাবে? এখানেই চলে আসে মার্কেটপ্লেসের ধারণা । 

মার্কেটপ্লেস হচ্ছে, একটা প্ল্যাটফর্ম বা একটা নির্দ্রিষ্ট প্লেস বা জায়গা যেখানে আপনি কাজ খুজে পাবেন অর্থাৎ একটা মার্কেট । এখন আপনি নিশ্চই জানেন মার্কেট কি জিনিস? যেখানে বেচাকেনা হয় যেকোন প্রোডাক্ট । অনলাইনে ফ্রিল্যান্সিং কাজের ক্ষেত্রে মার্কেটপ্লেস হচ্ছে একটা ওয়েবসাইট যেখানে যারা ক্লায়েন্ট অর্থাৎ যাদের কাজ দরকার তারা এসে কাজের জন্য স্কিলড লোক খুজবে এবং যারা ফ্রিল্যান্সার বা স্কিলড মানুষ তারা তাদের সার্ভিস প্রদান করবে । সিম্পল না? জনপ্রিয় কিছু মার্কেটপ্লেস হচ্ছে, আপওয়ার্ক, ফ্রিল্যান্সার.কম, ফাইভার, গুরু.কম, পিপল পার আওয়ার ইত্যাদি । এসব জায়গায় আপনি বিভিন্ন দক্ষতা ভিত্তিক কাজ খুজে পাবেন । একজন ফ্রিল্যান্সারের ক্যারিয়ার এসব জায়গা থেকেই নর্মালি শুরু হয়ে থাকে ।

Leave a Comment

Your email address will not be published.

This will close in 0 seconds