ফ্রিল্যান্সিং এর নামে প্রতারণা যেসকল বিষয়ে সতর্ক থাকতে হবে

ফ্রিল্যান্সিং এর নামে প্রতারণা: যেসকল বিষয়ে সতর্ক থাকতে হবে

মূল বিষয়বস্তুর ভেতরে ঢোকার আগে এই ব্যাপার গুলো নিয়ে কথা বলি । অনলাইনে আয় করার নামে অনেকে আছে অসাধু উপায়ে অর্থ আয়ের কথা বলে বিগিনারস দের ধোকা দিয়ে টাকা ইনকাম করে নেয় । 

যারা নতুন তাদের প্রতারণার ব্যাপারে তেমন আইডিয়া না থাকায় সহজে ধরতে পারে না এটা আসলেই সঠিক পন্থা কি না টাকা আয়ের জন্য । বেশ কিছু প্রচলিত ধোকার কথা আমি এখানে আলোচনা করছি যাতে আপনি বুঝতে পারেন এবং দূরে থাকতে পারেন । 

এর আগের অধ্যায় পড়ার মাধ্যমে নিশ্চই বুঝতে পেরেছেন টাকা আয়ের মৌলিক বিষয় কি । কি কাজ করলে এবং কিভাবে কাজ করলে আপনি টাকা পাবেন । আপনাকে অবশ্যই ভ্যালু প্রদান করতে হবে এটাই মূল কথা । 

কিন্তু নিচে যা আলোচনা করব আমরা সেগুলো কোনভাবে ভ্যালু প্রদান করে না কাউকে । শুধুই ধোকবাজির একটা মাধ্যম হিসেবে ব্যবহৃত হয় । এজন্য এগুলো করে কেউ টাকা আয় করতে পারে না । সেই জিনিস গুলো কি কি?

ক্লিক করে টাকা আয়

কেউ কেউ বলবে আপনাকে অমুক ওয়েবসাইটে একাউন্ট খোলার মাধ্যম আপনি বিভিন্ন এডে ক্লিক করে টাকা আয় করতে পারবেন । প্রথমেই বলি এগুলো সবই ধোকা । কারন হচ্ছে এডে ক্লিক করলে কিন্তু আপনি কাউকে কোন ভ্যালু প্রভাইড করছেন না । 

এড মানুষ কেন দেয়? তার ব্যবসার প্রচারের জন্য । কিন্তু আপনি যদি শুধু টাকা পাবেন এই চিন্তায় এডে ক্লিক করতে থাকেন তাহলে কি উক্ত এড যে দিচ্ছে তার ব্যবসায়ের লাভ হবে কখনো? হবে না । 

কারণ আপনি কখনোই তার প্রডাক্ট কিনছেন না । এজন্য এড ক্লিকের মাধ্যম বৈধ ও সঠিক ভাবে কখনোই আয় করা সম্ভব না । এটি একটি স্ক্যাম এবং ধোকাবাজি । এছাড়াও অনেক সময় ধোকাবাজরা আপনাকে টাকা দিতে বলবে একাউন্ট খুলতে বা একাউন্ট আপগ্রেডের নামে । 

এসবই ভাওতাবাজি । এখানে টাকা দিলে নিশ্চিত থাকবেন যে টাকা লস যাবে । এজন্য এসব থেকে সাবধান থাকতে হবে । এগুলোকে বলা হয় পিটিসি সাইট । মাথায় রাখবেন নামটা । পরে তাহলে চিনতে সুবিধা হবে । 

এটা মনে রাখবেন যে পিটিসি সাইট মানেই ভুয়া সাইট। পৃথিবীতে অনেক পিটিসি সাইট আছে যেগুলো ক্লিক করলেই ডলার আয়ের অফার দিয়ে অনলাইন জগতে প্রতারনা করে আসছে। 

আসল কথা হল এসব কোন পিটিসি সাইটই টাকা দেয় না। সুতরাং অযথা সময় নষ্ট না করে সঠিক উপায় টাকা উপার্যন করতে হবে । এই সঠিক সাইট এবং উপায় গুলো এগুলো নিয়ে ফিউচারে আলোচনা করা হবে ।

এমএলএম

এমএলএম বা MLM- Multi Level Marketing হচ্ছে বাংলাদেশে একটি বহুল প্রচলিত মাধ্যম ফাঁদে পড়ার যারা বাংলাদেশে আয় করতে চায় । এই মাধ্যমে আপনি প্রাথমিক ভাবে কোন সমস্যা দেখবেন না টাকা আয়ের । 

যেহেতু কাজ করতে নেমেই দেখতে পারবেন টাকা হাতে পাওয়া যাচ্ছে ।  কিন্তু এখানে একটা ট্র্যাপ থাকে । আপনাকে বিভিন্ন কোম্পানি অফার করবে একটি নির্দ্রিষ্ট পরিমান টাকা দিয়ে তাদের কোম্পানিতে জয়েন করেত । 

বিভিন্ন অফিস নিয়ে, চাকচিক্য তৈরী করে তারা একটা কর্পোরেট ভাইব দেওয়ার চেষ্টা করে । এখানেই একটা ফাঁদে পড়ার সম্ভাবনা থাকে এসব দেখে । এরকম যদি কোন কোম্পানি দেখেন যেখানে টাকা আয়ের জন্য আপনাকে টাকা দিয়ে ঢুকতে হয় সেগুলো এভয়েড করার চেষ্টা করবেন । 

এরপরে আপনাকে কিছু আজগুবি টাইপ প্রোডাক্ট দিতে পারে বা বলবে আরো লোক আনতে । লোক আনলে আপনি টাকা পাবেন । কিন্তু দিন শেষে সেই ভ্যালু প্রভাইড এর কোন ব্যাপার থাকে না । 

এজন্যই খেয়াল রাখবেন, আপনি টাকা কি কারণে দিচ্ছেন সেটাই বুঝতে পারছেন না সেখানে টাকা দিয়ে ঢোকার কোন মানেই হয় না । আউটসোর্সিং কাজের জন্য কখনো টাকা দিতে হয় না । বরং আপনি কাজ করে টাকা পাবেন । আপনি টাকা দিয়ে ভ্যালু পেলে বুঝবেন টাকা টা ঠিক জায়গায় যাচ্ছে । অতএব এ ধরনের এমএলএম কোম্পানি গুলো এভয়েড করতে হবে ।

এড দেখে টাকা আয়

আরো বিভিন্ন অ্যাপ বা ওয়েবসাইট দেখে থাকবেন যেখানে বলবে এড দেখে টাকা আয় করা যায় । আবার কেউ কেউ এসব জায়গায় জয়েনের জন্যও টাকা চেয়ে থাকবে । এক কথায় এসব থেকে দূরে থাকতে হবে । আপনি কারো এড দেখলে কিভাবে ভ্যালু প্রভাইড করা হয়? বুঝতে পারছেন আশা করি । এটাও একটা ভাওতাবাজি । এগুলো করে কখনো ক্যারিয়ার করা যায় না । 

আমি আপনাদেরকে বেসিক বিষয় টা অলরেডি দেখিয়ে দিয়েছি । এখন এ ধরণের যেকোন ফ্রড দেখলেই বুঝে যাবেন এটা সঠিক নাকি ভুল টাকা আয়ের ক্ষেত্রে । এছাড়া অনলাইনে জগতে ঘাটাঘাটি করলে ভাল আইডিয়া পেয়ে যাবেন অর্থ উপার্জনের ব্যাপারে এবং এসব ফ্রডের ব্যাপারে । তখন নিজে থেকেই বুঝতে পারবেন । আর বুঝতে সমস্যা হলে সিম্পলি গুগল করবেন তাহলে ক্লিয়ার হয়ে যেতে পারবেন ।

Leave a Comment

Your email address will not be published.

This will close in 0 seconds